আশুগঞ্জে ফিরোজ মিয়া সরকারি কলেজ থেকে ৪ টি বিষধর সাপ উদ্ধার।

আকাশ সরকার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া:
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে ফিরোজ মিয়া সরকারি কলেজের ছাত্রাবাস থেকে আরো ৪টি ভিন্ন প্রজাতির বিষধর সাপ উদ্ধার করেন সাপুরিয়া দল। সোমবার বিকেলে কলেজের ছাত্রাবাস থেকে কুমিল্লা থেকে আগত একটি সাপুরিয়া দল এই ৪টি ভিন্ন প্রজাতির সাপ উদ্ধার করেন। সাপুরিয়া দলের সরদার কামালের ভাষ্যমতে সাফগুলো হলো, কালি ফানুস, ঢ্যাড়াস, ভিঙ্গরাজ ও কুবড়া।

কলেজ সূত্রে জানা যায়, শনিবার রাতে কলেজ ছাত্রাবাসে একটি বিষধর গোখরা সাপের চলাচল করতে দেখে ছাত্রাবাসে থাকা শিক্ষার্থীরা। পরে কলেজ অধ্যক্ষ আহমদ উল্লাহ খন্দকারের নেতৃত্বে শিক্ষার্থীরা মিলে সাপটি নিধন করেন। সোমবার দুপুরে আবার কলেজ ছাত্রাবাসে কাজের ভূয়া ছাত্রবাসের খাবারের রুমে একটি সাপ দেখতে পায়। পরে বিষয়টি কলেজ অধ্যক্ষের কাছে অবগতি করলে। কলেজ অধ্যক্ষ কুমিল্লা থেকে সাপুরিয়ার একটি দল এনে সাপ ধরার প্রক্রিয়ার শুরু করে। এর কিছুক্ষণ পরই ধাপে ধাপে ডিমসহ ৪টি ভিন্ন প্রজাতির সাপ উদ্ধার করেন সাপুরিয়া দল। তবে সাপগুলো উদ্ধার করা হলেও কলেজের ছাত্রাবাসে থাকা শিক্ষার্থীদের মধ্যে আতংক বিরাজ করছে। তবে সাপুরিয়ারা বলছেন আর ভিতরে কোন সাপ থাকার সম্ভাবনা নেই। তবে থাকলেও কলেজের সীমানা বাইরে থাকতে পারে।

ফিরোজ মিয়া সরকারি কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ আহমদ উল্লাহ খন্দকার জানান, সাপুরিয়া দলের সাহায্যে আমরা কলেজ ছাত্রাবাস থেকে ৪টি ভিন্ন প্রজাতির বিষধর সাপ উদ্ধার করি। বর্তমানে ছাত্রবাস থেকে শিক্ষার্থীদের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *