হাবিপ্রবির হতাশার দেয়ালে এখন স্বস্তির নিঃশ্বাস

আব্দুল কাইয়ুম, হাবিপ্রবি:
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার ২২ বছর অতিক্রম করলেও হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ফলাফল ঝুলিয়ে দেয়া হতো পুরাতন রূপালী ব্যাংকের দেয়ালে (হতাশার দেয়াল)। এ নিয়ে দীর্ঘ ক্ষোভ ছিল শিক্ষার্থীদের মাঝে। সাধারণ শিক্ষার্থীর দীর্ঘদিনের দাবির প্রেক্ষিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে সেমিস্টার ফাইনালের ফলাফল প্রকাশ করা শুরু করেছে হাবিপ্রবি প্রশাসন। কৃষি ও সোশ্যাল সায়েন্স এন্ড হিউম্যানিটিস অনুষদের রেজাল্টের মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে ফলাফল প্রকাশ শুরু হয় বলে নিশ্চিত করেন হাবিপ্রবির পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক অধ্যাপক ড. মোঃ সাইফুর রহমান।

পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক জানান, ” মাননীয় উপাচার্য মহোদয়ের সম্মতি ও সার্বিক দিকনির্দেশনার ফলে কাজটি দ্রুত সময়ের মাঝে বাস্তবায়ন করা সম্ভব হয়েছে। আমি তাকে আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ জানাই। বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে ফলাফল প্রকাশ করার কারণে শিক্ষার্থীরা এখন দেশের যেকোনো প্রান্ত থেকে নিজেদের ফলাফল জানতে পারবে এমনকি প্রয়োজনে নিজের ফলাফল ডাউনলোড করতে পারবে। সর্বোপরি এটি একটি সময়োপযোগী সিদ্ধান্ত যার সুবিধা শিক্ষার্থীরা সব সময় পেতে থাকবে। পুরাতন রূপালি ব্যাংকের দেয়ালে ( হতাশার দেয়াল) যেখানে রেজাল্ট ঝুলিয়ে দেয়া হতো সেটি দৃষ্টিকটু ছিলো। এখন থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট ও কন্ট্রোলার সেকসনের নোটিশ বোর্ডে এসেও শিক্ষার্থীরা নিজেদের ফলাফল দেখতে পারবে “।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে ফলাফল প্রকাশের ব্যাপারে হাবিপ্রবির আইটি সেলের কো-অর্ডিনেটর সহযোগী অধ্যাপক মোঃ মেহেদী ইসলাম বলেন,” উপাচার্য মহোদয়ের সহযোগিতার কারণে আইটি সেলের যেকোনো প্রয়োজনে সিদ্ধান্ত গ্রহণের দীর্ঘসূত্রিতার অবসান হয়েছে। আমি হাবিপ্রবির আইটি সেলের পক্ষ থেকে উপাচার্য মহোদয়কে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। পাশাপাশি সিএসই অনুষদের সম্মানীত ডীন, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক শাখা ও আইটি সেলে যারা দিনরাত নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন তাদের সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। এছাড়া সাধারণ শিক্ষার্থীদের জন্য অতি দ্রুত সময়ের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের ডায়েরি অ্যাপটি প্লে-স্টরে আপলোড করা হবে “। কিছু জটিলতা থাকায় সাময়িক সময়ের জন্য অ্যাপটি প্লে -স্টোরে পাওয়া যাচ্ছে না বলে জানান তিনি।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে ফলাফলের খবরে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে বিজ্ঞান অনুষদের শিক্ষার্থী মো: জাকারিয়া রহমান বলেন, “সত্যিই এটি আমাদের জন্য একটি আনন্দের সংবাদ। বর্তমান বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন শিক্ষার্থীদের স্বার্থে কাজ করে যাচ্ছে তা ধীরে ধীরে দৃশ্যমান হচ্ছে। আমরা প্রত্যাশা করি আগামীতেও এই ধারা অব্যাহত থাকবে। তবে শিক্ষার্থীদের সার্টিফিকেট উত্তোলন করার সময় অনেক ভোগান্তিতে পরতে হয় এবং চূড়ান্ত ফাইনাল পরীক্ষার পরে ফলাফল প্রকাশ করতে অনেকটা সময় লাগে যা দুঃখজনক। আশা করি উক্ত সমস্যা দুইটি সমাধানে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন দ্রুত কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণ করবে।

উল্লেখ্য যে, হাবিপ্রবি সাংবাদিক সমিতি সাধারণ শিক্ষার্থীদের পক্ষ হয়ে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কাছে শিক্ষার্থীদের ফলাফল বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে প্রকাশের দাবি জানানোর পরে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন এমন উদ্যোগ নেয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *