ভোলা হবে এক সময় পরিচিতি আদা’র জেলা হিসেবে

সাব্বির আলম বাবু, ভোলাঃ
ভোলার কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তরের উপ পরিচালক জনাব এনায়েত উল্লাহ খান বলেন, ভোলা এক সময় আদার জেলা হিসাবে পরিচিত হবে। ভোলার ভয়াবহ করোনা পরিস্থিতিও সৃষ্টিশীল এ মানুষটিকে ঘর বন্দি করে রাখতে পারেননি। যেখানে করোনা ভয়ে অনেকেই প্রাণ বাঁচাতে অফিসতো দূরের কথা ঘর থেকেই বের হচ্ছেন না সেখানে রেকর্ড মৃত্যুর দিনে কৃষির মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন ভোলার এ জেলা কৃষি কর্মকর্তা। তারই ধারাবাহিকতায় ভোলা সদর উপজেলার রাজাপুর ৯ নং ওয়ার্ডের শ্যামল বাংলা কৃষি খামারে গিয়েছেন জেলায় প্রথমবারের মত উচ্চমুল্য- মসলা ফসল আদা চাষ করা কৃষকদের দিক নির্দেশনা দিতে। মাঠে দাঁড়িয়েই খোজ খবর নিচ্ছেন ইউনিয়নের সকল কৃষকদের। এসময় কিভাবে নূতন করা আদা ও আঁদা ক্ষেতের পাশের পতিত জমিতে কিভাবে বারোমাসি তরমুজ করে লাভবান হওয়া যায় তার কর্যকরি পরামর্শও দেন উপস্থিত সকল কৃষকদের। পরে তিনি শ্যামল বাংলা কৃষি খামারের ৫০ শতাংস জমিতে করা আঁদা ক্ষেত আদা ক্ষেতের পাশের পরিত্যাক্ত জমিতে করা ১২ মাসি তরমুজের ফলন ঘুরে দেখেন। এসময় তার সাথে উপস্থিত ছিলেন উইনিয়নের দায়িত্বে থাকা উপসহকারি কৃষি কর্মকর্তা এবিএম মোস্তফা কামাল। সময় জেলা কৃষি কর্মকর্তা ভোলার মাটি উপযোগি পিয়াজের মত প্রয়োজনীয় ফসল করার জন্য কৃষকদের উদ্বোদ্ধ করেন।
তিনি আরো বলেন, ভোলার ধান বাংলাদেশের ৪ টির বেশি জেলার খাদ্য চাহিদা মেটায়। আগামিতে দেশের কয়েকটি জেলার আদার চাহিদাও মিটাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *